চাঁপাইনবাবগঞ্জ—১ আসনে আবারো নৌকার নিবার্চনী অফিসে আগুন দিয়েছে দূবৃর্ত্তরা


তারেক আজিজ প্রকাশের সময় : ০৩/০১/২০২৪, ৫:৩৯ অপরাহ্ণ /
চাঁপাইনবাবগঞ্জ—১ আসনে আবারো নৌকার নিবার্চনী অফিসে আগুন দিয়েছে দূবৃর্ত্তরা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ—১ আসনে (শিবগঞ্জ) আবারো নৌকার নিবার্চনী অফিসে আগুন দিয়েছে দূবৃর্ত্তরা। এতে ওই নিবার্চনী অফিসের মালামাল পুড়ে গেছে বলে নিশ্চিত করেছেন নৌকা প্রতীকের উপজেলা নিবার্চন পরিচালনা কমিটির যুগ্ম—আহ্বায়ক তৌহিদুল আলম টিয়া।
মঙ্গলবার(২ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ৩ টার দিকে কানসাট ইউনিয়নের আব্বাস বাজারের প্রধান নিবার্চনী ওই অফিসে আগুন দেয় দূবৃর্ত্তরা। তৌহিদুল আলম টিয়া জানান, দূবৃর্ত্তদের দেয়া আগুনে কানসাটের প্রধান নিবার্চনী অফিসের ব্যানার, পোস্টার, টেবিলক্লথ ও অফিসের সামিয়ানা পুড়ে গেছে। তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় সহকারী রিটার্নিং কর্মকতার্ ও আইন—শৃঙ্খলা বাহিনীকে জানানো হয়েছে।’


তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত নৌকার ৪টি অফিস পুড়িয়ে (কানসাট, মোবারকপুর, মোহনবাগ ও দায়পুকুরিয়া) দিয়েছে দূবৃর্ত্তরা। এসব অফিস পুড়ানোর ঘটনায় আইন—শৃঙ্খলা বাহিনী ও সহকারি রিটার্নিং কর্মকতার্দের জানানো হলেও; ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাসই শুধু মিলেছে; কার্যত কোন ব্যবস্থায় গ্রহণ করা হয়নি। পুলিশের পক্ষ থেকে ঘটনার পর শুধু পরিদর্শনই মিলেছে। এমনকি কারা এ ধরনের ঘটনা রাতের আঁধারে করছে; তাদের চিহৃিত করাও সম্ভব হয়নি প্রশাসেনর পক্ষ থেকে।’
এদিকে, নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ডা. সামিল উদ্দিন আহম্মেদ শিশুল জানান, সম্প্রতি তাঁর একাধিক অফিসে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটলেও; এখন পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি। এমনকি তাঁর নেতা—কর্মীদের উপর হুমকি—ধামকি অব্যাহত আছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
তিনি আরও বলেন, প্রতিপক্ষ সতন্ত্র প্রার্থীর (ট্রাক) লোকজনের হুমকি—ধামকি এবং কিছু কিছু জায়গায় প্রভাব বিস্তার করায় আমারা নেতা—কর্মী ও সমর্থকরা এখনও ওইসব এলাকায় ভোটের প্রচার—প্রচারনা চালাতে পারছেনা। তিনি বলেন, নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়েনর তিনিটি ওয়ার্ডে এবং মরদানা এলাকায় প্রতিপক্ষের লোকজন প্রতিনিয়ত এই হুমকি—ধামকি অব্যাহত রেখেছেন। আশি আশা করবো পুলিশ প্রশাসন ও রিটার্নিং কর্মকতার্ এসব বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করে নিবার্চনের সুষ্ঠ পরিবশে বজায় রাখবেন।’
এদিকে, শিবগঞ্জ থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে এ ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তিনি জানান, পেট্রোল বোমা বা বিষ্ফোরক দ্রব্য দিয়ে নিবার্চনী অফিসটি পুড়িয়ে ফেলার আলামত পাওয়া গেছে। তবে কে বা কারা এ ধরনের নাশকতামূলক কর্মকান্ড ঘটিয়েছে, তা তদন্ত করা হচ্ছে এবং এ বিষয়ে দ্রুতই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।